টয়লেটের ট্যাংক থেকে মোবাইল তুলতে গিয়ে মৃত্যু

খাগড়াছড়ির রামগড়ে টয়লেটের ট্যাংকে পড়ে যাওয়া মোবাইল তুলতে গিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

টয়লেটের ট্যাংকে পড়ে যাওয়া মোবাইল ফোন তুলতে গিয়ে বিষাক্ত গ্যাসের ক্রিয়ায় মারা গেছেন এক ব্যক্তি। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ে। নিহত ব্যক্তির নাম মরণ মালাকার (৪৮)। তিনি রামগড় পৌর এলাকার গর্জনতলীর মৃত চন্দ্রমোহন মালাকারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, জগন্নাথপাড়া এলাকার ছায়া রাণী শীলের মেয়ে সীমা রাণী টয়লেটে গেলে তার ব্যবহৃত মোবাইলটি টয়লেটের ট্যাংকে পড়ে যায়। ফোনটি তুলতে মরণ মালাকারকে ডেকে আনা হয়। ট্যাংকে নামলে বিষাক্ত গ্যাসের ক্রিয়ায় মরণ মালাকারের মৃত্যু হয়।

প্রতিবেশীরা আরো জানান, ট্যাংকে নামার সময় মরণ মালাকার মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। খবর পেয়ে রামগড় ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মী ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। ফায়ার সার্ভিস এর সিনিয়র ফায়ারম্যান মোঃ বশির উদ্দিন জানান, গর্তটি প্রায় ১৫ ফুট গভীর। টয়লেটের বিষাক্ত গ্যাসে নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে তিনি মারা গেছেন। শনিবার রাতেই নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়।

রামগড় থানার ওসি তদন্ত মোঃ মনির হোসেন জানান, নিহতের লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here