দুজন অন্ধ মানুষের জীবনের গল্প নিয়ে ‘মহামায়া’

নিয়মিত যারা টিভি পর্দায় চোখ রাখেন, তারা জানেন নাট্যনির্মাতা ও রচয়িতা সুমন আনোয়ার সবসময়ই একটু ভিন্ন ধরনের গল্প নিয়ে নাটক বা টেলিফিল্ম নির্মাণ করেন। তার নির্মিত নাটক-টেলিফিল্মে জীবনের অন্য কোনো বাঁকের গল্প সাধারণত উঠে আসে। এ ধারাবাহিকতায় গেল ঈদে তার নির্মিত ‘অন্ধকার ঢাকা’ নাটকটি দর্শকের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে। এতে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, জাকিয়া বারী মম ও শ্যামল মাওলা।

নতুন খবর হলো, এবার সুমন আনোয়ার দুজন অন্ধ মানুষের জীবনযাপন কেমন হতে পারে, তেমন গল্প নিয়েই নির্মাণ করেছেন আগামী ঈদের বিশেষ নাটক ‘মহামায়া’। গত বুধ ও বৃহস্পতিবার টানা শুটিং করে এর নির্মাণকাজ শেষ করেছেন। নাটকটি লিখেছেন সুমন আনোয়ার নিজেই। নাটকটিতে অন্ধ স্বামী-স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী।

এ নাটকে অপূর্ব শহীদ চরিত্রে এবং মেহজাবিন অভিনয় করেছেন কণা চরিত্রে। নাটকের গল্পে দেখা যাবে এ দম্পতির শিশুসন্তানকেও। নানা সংগ্রামের মধ্যে অতিবাহিত হয় তাদের জীবন। মূলত এ তিনজনকে ঘিরেই নাটকের গল্প এগিয়ে যায়। নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘মহামায়া একেবারেই ভিন্ন ধরনের গল্পের একটি নাটক। এ ধরনের গল্পে এর আগে কখনই আমার অভিনয় করা হয়ে ওঠেনি। পুরো নাটকে অন্ধ হিসেবে অভিনয় করে যাওয়া একজন অভিনেতার জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জিং ব্যাপার। সুমন ভাই খুব সহযোগিতা করেছেন। মেহজাবিনও অনেক ভালো করেছে তার চরিত্রে। আমি খুবই আশাবাদী কাজটি নিয়ে।’

মেহজাবিন বলেন, ‘সুমন আনোয়ার ভাইয়ের পরিচালনায় এবারই প্রথম আমার কাজ করা। গল্পটা এক কথায় অসাধারণ, দুজন অন্ধ মানুষের জীবনযাপন কেমন হতে পারে, সেটিই নাটকটিতে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন তিনি। আমার কাছে কাজটি করে ভীষণ ভালো লেগেছে। অপূর্ব ও আমি দুজনই কাজটি উপভোগ করেছি। আশা করছি, দর্শকেরও ভালো লাগবে।’ আগামী ঈদে নাটকটি একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলে প্রচার হবে। সৌজন্যে- বণিক বার্তা অনলাইন।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here