বেশি ঘুমের কত ক্ষতি?

অনেকেই ছুটির দিনে বা অলস সময়ে খুব বেশি ঘুমাতে পছন্দ করেন। কেউ কেউ আবার কোনো কারণ ছাড়াই দীর্ঘক্ষণ বিছানায় থাকতে আসক্ত। কথায় আছে, বেশি ঘুম নাকি মানুষকে নিস্ক্রিয় করে দেয়। সাম্প্রতিক এক গবেষণায়ও এর প্রমাণ মিলেছে। এতে দেখা গেছে, অতিরিক্ত ঘুম এবং অলস বসে থাকা শরীর ও মনের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। শুধু তাই নয়, এমনকি তা নাকি রীতিমতো ধূমপান বা মদ্যপানের মতোই ক্ষতিকর। এমনকি অতিরিক্ত ঘুম মৃত্যু পর্যন্ত ডেকে অানতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার স্যাক্স ইনস্টিটিউট ৪৫ বছরের বেশি বয়সী প্রায় ২ লাখ ৩০ হাজার অস্ট্রেলিয়র ওপর গবেষণাটি করে। এ সকল মানুষের জীবনযাপনে যত বাজে অভ্যাস রয়েছে তার তথ্য নেওয়া হয়। এর মধ্যে মোটেই কাজ না করা আর ৯ ঘণ্টার বেশি ঘুম তালিকাবদ্ধ করা হয়। আরো বদভ্যাসের মধ্যে ছিল ধূমপান, অ্যালকোহল, অস্বাস্থ্যকর খাবার ইত্যাদি। জরিপকৃতদের ৩০ শতাংশের এসব অভ্যাসের দু-তিনটি চর্চা করতেন। ৬ বছর পরে এক রিপোর্টে বলা হয়, এদের প্রায় ১৬ হাজারের মৃত্যু ঘটেছে।

গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা দৈহিকভাবে একেবারেই ঘাম ঝরান না, তাদের মৃত্যুর সম্ভাবনা অন্যদের চেয়ে ১.৬ গুণ বেশি। ন্যূনতম কাজ করা বলতে সপ্তাহে অন্তত ১৫০ মিনিট হালকা থেকে ভারী কাজ বোঝানো হয়েছে। আবার যারা কাজ না করে প্রচুর ঘুমান তাদের মৃত্যু ঝুঁকি বেশি। এ দু’য়ের সঙ্গে যদি ধূমপান এবং অ্যালোকোহল যোগ হয়, তবে ঝুঁকি আরো বৃদ্ধি পায়।

ইউনিভার্সিটি অব সিডনির সিডনি স্কুল অব পাবলিক হেলথ’র ফেলো এবং সংশ্লিষ্ট গবেষণার প্রধান মেলোডি ডিং জানান, চরম অলসতা এবং ঘুমানোর সঙ্গে আয়ু কমে আসার বিষয়টি জড়িত। যারা নড়াচড়া না করে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকেন এবং বেশি বেশি ঘুমান তাদের শারীরিক অবস্থা অন্যদের চেয়ে বেশি খারাপ থাকে।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here