স্বীকারোক্তি : পাকিস্তানের ভেবে নিজেদের হেলিকপ্টার ভূপাতিত করেছিল ভারত!

ঘটনার প্রায় নয় মাস পর প্রকাশ্যে এল আসল ঘটনা। গত ফেব্রুয়ারিতে ভারতীয় বিমানবাহিনী পাকিস্তানে ঢুকে বোমা হামলা চালিয়েছিল। তার একদিন পরেই কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরে মিগ সেভেনটিন ভি ফাইভ নামে একটি হেলিকপ্টার ভূপাতিত করে ভারত। এতদিন সেটা পাকিস্তানের হেলিকপ্টার বলে দাবি করলেও এবার সেটা নিজেদের বলে স্বীকার করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। একইসঙ্গে দেশটির বিমানবাহিনীর প্রধান জানিয়েছেন, সেটি ছিল তাদের ‘বড় ভুল’।

এনডিটিভি জানিয়েছে, পাকিস্তানের ভূখণ্ডে ঢুকে বালাকোটে জঙ্গি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বোমাবর্ষণ করার একদিন পরেই শ্রীনগরের কাছে বাদগামে গুলি করে নামানো হয় এমআই সেভেনটিন ভি ফাইভকে। বিচারবিভাগীয় তদন্তে দেখা গেছে, শ্রীনগর বিমানবন্দরে স্পাইডার বিমান প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্র সিস্টেম থেকে মিসাইল ছুঁড়ে হেলিকপ্টারটিকে নামানো হয়েছিল। বিমান বাহিনী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারাই ওই সাংঘাতিক ভুলটি করেছেন। 

টেক-অফের ১০ মিনিট পরেই হেলিকপ্টারটি ভেঙে পড়ে। যেখানে সেটি ভেঙে পড়ে তার পাশেই ছিল জনবসতি। এমআই-১৭ হেলিকপ্টারটি ভেঙে দুই টুকরো হয়ে যায় এবং ভয়াবহ আগুন লাগে তাতে। এয়ার চিফ মার্শাল রাকেশ ভাদুরিয়া জানান, ‘সেটি ছিল আমাদের বড় ভুল। আমাদের ক্ষেপণাস্ত্রটিই আঘাত করে ওই হেলিকপ্টারটিকে। এটি প্রমাণিত হয়েছে। তদন্তের পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা এবং নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারির সেই হামলার পর ভারত যখন হেলিকপ্টারটিকে পাকিস্তানের বলে দাবি করে তখনই পাকিস্তানে সেটি ভারতের বলে জানিয়েছিল। হেলিকপ্টার ধ্বংসের ঘটনায় ভারতীয় বিমান বাহিনীর ৬ সদস্য ছাড়াও একজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হন। পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলার প্রতিশোধ নিতেই সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে ঢুকে বালাকোট অঞ্চলে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বাহিনী। পুলওয়ামা হামলায় ভারতের ৪০ জন সেনা নিহত হয়েছিলেন। সেই থেকে দুই দেশের মাঝে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here